শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ০১:৩৮ পূর্বাহ্ন

বিশেষ বিজ্ঞপ্তি :

নিউজ পোর্টাল ও আইপি টেলিভিশন  আজকাল২৪.কম-এ ঢাকা সিটির প্রতি থানা ও সারেদেশে "রিপোর্টার/সংবাদদাতা" নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন aajkaalbd@gmail.com

কতোটা উন্মত্ত হলে মানুষ মারতে পারে মানুষকে!

কতোটা উন্মত্ত হলে মানুষ মারতে পারে মানুষকে!

যে হৃদয়ে ভালোবাসা থাকে, সেই হৃদয়ে ক্রোধ কতোটা উন্মত্ত হলে মানুষ মারতে পারে মানুষকে। ঘুনে ধরা সমাজের সাম্প্রতিক চিত্রটা যেন এখন এমনই। খসে পড়ছে সামাজিক কাঠামোর পারস্পরিক মেলবন্ধন; যেখানে নেই সৌহার্দ্য আর সম্প্রীতির যুগলবন্দি সুর। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এখনই সময় তা মেরামতে কাজ শুরু করার।

নৃশংস নির্যাতনের পর নিথর আবরারকে ফেলে রাখার ঘটনার পেছনের ঘটনা চিত্রকল্পের ভাষায় তুলে ধরেছেন তার সহপাঠীরা।

যদিও এর অনেক আগেই প্রাণহীন থেতলানো শরীরের ছবিতে সবাই জেনেছেন, মানুষ কীভাবে নিঃশেষ করে মানুষকে।

বুয়েটের ওই ঘটনা ভোতা হয়ে যাওয়া এই সামাজের মানুষের মনোজগতে যে আঘাত হেনেছে তার রেশ কাটতে না কাটতে সুনামগঞ্জে বাবা-চাচার হাতে ৫ বছরের শিশু তুহিনের বিভৎস্য হত্যার ঘটনায়, স্তম্ভিত দেশের মানুষ।

যদিও মানুষের ওপর মানুষের এই নৃশংস আচরণের ব্যাখ্যাও আছে সাধারণ মনে। তারা বলছেন, সমাজের সামগ্রিক অবস্থার প্রতিচ্ছবি এসব ঘটনা।

সাধারণ মানুষ বলছে, পূর্বেও মানুষ ক্ষমতার কেন্দ্রে ছিলেন, ক্ষমতার কেন্দ্রে থেকে ক্ষমতার চর্চা করেছেন কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে ক্ষমতার যে রূপ সেখানে আসলে অনেক ভিন্নতা আছে। এবং এই ভিন্নতার কারণেই যখন মাউষ সহিংসু হয়ে উঠে, সে আসলে বুঝতে পারে না যে সে কোথায় গিয়ে থামবে। তীব্র ঘৃণা ও ক্রোধ নিয়ে তার উপর ঝাপিয়ে পরছে, এটা সামাজিক ও নৈতিক অবক্ষয়ের একটি প্রদর্শক।

তাই-বলে কী একের পর এক এমন ঘটনায় হতবাক মানুষ অমানিশার ঘোর অন্ধকারে নিমজ্জিত থাকবে?

শিক্ষার্থীরা বলছেন, সিস্টেরমের প্রতিটি জায়গাই যখন ধ্বংস তখন আপনি কোন কথা বলতে পারবেন না। আমাদের সেই সিস্টেম পরিবর্তন করতে হবে আর তার জন্য সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।

সংঘাত-বিদ্বেষ যেকোন সমাজেই রয়েছে। তবে নৃশংসতার মাত্রায় থাকে ভিন্নতা। তারই ব্যাখ্যা দিলেন, মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞ অধাপক ডা. ওয়াজিউল আলম চৌধুরী। তিনি বলেন, নৈতিক দিক দেখে আস্তে আস্তে মানুষ আগ্রাসনের দিকে যাচ্ছে। জন্মগত হয়ত কিছু ক্তুটি থাকতে পারে, সেটা সেই সাথে এই সামাজিক অবক্ষয় সব মিলিয়ে অবস্থা আরও ভয়ানহের দিকে যাচ্ছে। আজ যদি সমাজে এরকম না হত, সমাজে যদি একটা নিয়ন্ত্রণ থাকতো তবে এতটা অবক্ষয় হতো না। এটি একটি বৈশ্বিক সমস্যা, আর এটি সমধান করাও কারও একার পক্ষে সম্ভব নয়।

তারমতে, ঘুনে ধরা এই সমাজের বাহ্যিক রূপ না দেখে রাষ্ট্রযন্ত্র-পরিবার সবখান থেকেই শুরু করতে হবে মেরামতের কাজ তা না হলে আগামীতে মাসুল গুনতে আরও বেশি।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2017 AjKaal24.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com