রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৭:১১ অপরাহ্ন

বিশেষ বিজ্ঞপ্তি :

নিউজ পোর্টাল ও আইপি টেলিভিশন  আজকাল২৪.কম-এ ঢাকা সিটির প্রতি থানা ও সারেদেশে "রিপোর্টার/সংবাদদাতা" নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন aajkaalbd@gmail.com

পাল্টে গেছে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের দৃশ্য

পাল্টে গেছে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের দৃশ্য

কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে পাল্টে গেছে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের দৃশ্য। মাত্র কয়েক ঘণ্টা আগে মহাসড়কের যে জায়গায় শত শত গাড়ির দীর্ঘ সারি দেখা গিয়েছিলো, সে জায়গাতেই এখন গাড়ির শব্দ শোনা যাচ্ছে মাঝে-মধ্যে।

এই দৃশ্য টাঙ্গাইল সদর উপজেলার রসুলপুর এলাকার। আজ (১১ আগস্ট) সকাল থেকে যে স্থানটি যানজটের দৃশ্য দিয়ে গণমাধ্যমের দৃষ্টি কেড়েছিলো বিকাল ৫টার দিকে সেখানে বেশখানিক পর পর গাড়ি যেতে দেখা গেছে।

বঙ্গবন্ধুসেতুর পূর্বপ্রান্ত থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোশাররফ হোসেন দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, “বঙ্গবন্ধুসেতুর পূর্ব পাশে ২৫ কিলোমিটার যে যানজট লেগেছিলো সেই জটে আটকা পড়া গাড়িগুলো বিকাল চারটার দিকে পূর্ণগতিতে বঙ্গবন্ধুসেতু পার হয়ে যায়।”

তিনি আরো বলেন, “সেতুর পশ্চিমপ্রান্তের সড়ক যানজটমুক্ত হওয়ার কারণে পূর্বপ্রান্তের আটকা পড়া গাড়িগুলো খুব দ্রুত গতিতে চলে যেতে পেরেছে। ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের যে অংশটিতে শত শত গাড়ি আটকে ছিলো এখন তা প্রায় ফাঁকা।”

“সারাদিন বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যানজটের চিত্র দেখে অনেকে হয়তো যাত্রা বাতিল করতে পারেন। তারা হয়তো এখন মহাসড়কের বর্তমান অবস্থার সংবাদ জানলে নতুন করে যাত্রা শুরু করতে পারেন,” যোগ করেন পুলিশ কর্মকর্তা।

তার মতে, বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্বপ্রান্তে টাঙ্গাইল অংশে যানজট হওয়ার কথা ছিলো না। রাস্তার পরিস্থিতি ও স্থানীয় পুলিশ বাহিনীর যে প্রস্তুতি ছিলো তাতে এই মহাসড়কটি যানজটমুক্ত থাকবে বলে তারা আশা করেছিলেন।

কিন্তু, সেতুর পশ্চিমপ্রান্তে সিরাজগঞ্জ অংশে হাতিকুমরুল পর্যন্ত ২২ কিলোমিটার রাস্তা দুই লেন এবং সরু দুটি সেতুর কারণে বিপুল সংখ্যক গাড়ি বঙ্গবন্ধু সেতু পার হয়ে সিরাজগঞ্জ অংশে প্রবেশ করেছে তখন যানবাহনের গতি ধীর হয়ে গেছে, মন্তব্য ওসি মোশাররফ হোসেনের।

তিনি আরো জানান, যানজটের কারণে বঙ্গবন্ধু সেতুর টোল প্লাজা আজ সকাল ৬টা থেকে ৮টা ৩৫ মিনিট পর্যন্ত মোট পাঁচবার বন্ধ রাখা হয়েছিলো। যার কারণে বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্বপ্রান্তে তথা টাঙ্গাইল অংশে প্রায় ৩০ কিলোমিটার এলাকায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। এবং তীব্র গরমে হাজার হাজার ঘরমুখো মানুষ অসহনীয় দুভোর্গের শিকার হন।

“তবে বর্তমানে রাস্তায় যথেষ্ট স্বস্তি বিরাজ করছে” উল্লেখ করে তিনি বলেন, “ঘরে ফেরা মানুষগুলো যারা সারাদিন কষ্ট করেছেন তারা এখন যানজটের এলাকা পার হয়ে গিয়েছেন বলে আমরা ধারণা করছি। এখন যারা যাত্রা করবেন তাদের যাত্রা স্বস্তিদায়ক হবে বলে আমরা আশা করি।”


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2017 AjKaal24.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com