শুক্রবার, ১৪ জুন ২০১৯, ০৬:৪৭ পূর্বাহ্ন

৮৬ হাজার বন্দির জন্য চিকিৎসক মাত্র ১০ জন

৮৬ হাজার বন্দির জন্য চিকিৎসক মাত্র ১০ জন

দেশে মোট কারাগার ৬৮টি। যার মোট ধারণক্ষমতা ৪০ হাজার। কিন্তু এর বিপরীতে বন্দির সংখ্যা ৮৬ হাজার। এই বন্দিদের চিকিৎসার জন্য মাত্র ১০ জন চিকিৎসক আছেন। তবে, ৬৮টি কারাগারে চিকিৎসকদের অনুমোদিত পদ আছে ১৪১ টি। ফলে, অসুস্থ হলেই চিকিৎসার জন্য ছুটতে হয় বাইরের চিকিৎসকদের কাছে। আর অ্যাম্বুলেন্স আছে মাত্র ১৫টি। কর্তৃপক্ষ বলছে শিগগিরই এসব সমস্যার সমাধান হবে।

কেউ গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে পাঠাতে হয় বাইরের চিকিৎসকের কাছে, কখনও কখনও হাসপাতালে। সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে এমন পরিস্থিতিতে বন্দির মৃত্যুর মত ঘটনাও ঘটেছে।

আবার চিকিৎসা সংকটের সুযোগ নিয়ে মাঝেমধ্যেই দুর্ধর্ষ ও ভিআইপি বন্দিরা বিভিন্ন রোগের অজুহাত দেখিয়ে মাসের পর মাস কারাগারের বাইরের হাসপাতালে থাকছেন।

এমন সমস্যা সমাধানে এবার উদ্যোগী হয়েছে কারাগার কর্তৃপক্ষ। এ বিষয়ে পেয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর দিকনির্দেশনা। গঠন করা হচ্ছে একটি চিকিৎসক পুল।

কারা মহাপরিদর্শক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম মোস্তফা কামাল পাশা বলেন, ‘আমরা যেন চিকিৎসক পেতে পারি সে কারণে প্রধানমন্ত্রী একটি দিক নির্দেশনা দিয়েছেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে একটি চিকিৎসক পুল গঠনের জন্য। যাতে করে সে পুল থেকে কারাগারেও চিকিৎসক পেতে পারি এবং সকল কারাবন্দিদের চিকিৎসা নিশ্চিত করা যেতে পারে।’

আর অসুস্থ বন্দিদের হাসপাতলে নেয়ার জন্য পর্যাপ্ত অ্যাম্বুলেন্সও নেই কারাগারগুলোতে। ফলে ভরসা করতে হয় ভাড়া করা গাড়ির ওপর। কর্তৃপক্ষ বলছে অ্যাম্বুলেন্স কেনার জন্য এরই মধ্যে একটি যাচাই-বাছাই কমিটি হয়েছে।

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম মোস্তফা কামাল পাশা জানান, চাহিদার তুলনায় অপ্রতুল মাত্র ১৫টি অ্যাম্বুলেন্স থাকার বিষয়টিকে দুঃখজনক উল্লেখ করে করেন। পাশাপাশি এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হলে কারাবন্দিদের চিকিৎসা-সংকট কাটবে বলে আশা প্রকাশ করেন কারামহারিদর্শক।


© All rights reserved © 2017 AjKaal24.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com