মঙ্গলবার, ২০ অগাস্ট ২০১৯, ০৯:০৮ অপরাহ্ন

দেশী এয়ারলাইন্সের কাছে বকেয়া ১৬শ’ কোটি টাকা

দেশী এয়ারলাইন্সের কাছে বকেয়া ১৬শ’ কোটি টাকা

দেশীয় এয়ারলাইন্সগুলোর কাছে সিভিল এভিয়েশনের বকেয়া ১৬শ’ কোটি টাকারও বেশি। বকেয়া ও সারচার্জ মিলে বিপুল পরিমাণ বকেয়া টাকা পরিশোধে হিমশিম খাচ্ছে এয়ারলাইন্সগুলো। বেসরকারি এয়ারলাইন্সকে টিকিয়ে রাখতে বিমানবন্দর ব্যবহারের খরচ কমানো ও সারচার্জ মওকুফের দাবি তাদের। তবে সিভিল এভিয়েশন ও মন্ত্রণালয় বলছে, সারচার্জ মওকুফের সুযোগ নেই।

উড়োজাহাজ উড্ডয়ন- অবতরণ থেকে শুরু করে পার্কিংয়ে রাখা- প্রতিটি পর্যায়েই বিমানবন্দর ব্যবহারের জন্য খরচ গুণতে হয় প্রতিটি এয়ারলাইন্সকে। সিভিল এভিয়েশনের হিসেব অনুযায়ী, চলতি বছরের ফেব্র“য়ারি পর্যন্ত বিভিন্ন খাতে খরচ বাবদ সিভিল এভিয়েশনের কাছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বকেয়া ১১শ ২ কোটি টাকা। এর সাথে সারচার্জ যোগ হবে আরো ১৯৮ কোটি টাকা।

রিজেন্টের কাছে বকেয়া ১২৩ কোটি টাকা, আর সারচার্জের পরিমাণ ৬৮ কোটি টাকা। ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের বকেয়া ৪২ কোটি টাকা, সারচার্জ ৪ লাখ টাকা। নভো এয়ারের কাছে পাওনা সারচার্জসহ ১ কোটি ৪১ লাখ টাকা।

বকেয়া টাকা পরিশোধে সহযোগিতা করতে সারচার্জ মওকুফ করে দেয়ার দাবি দেশিয় এয়ারলাইন্সগুলোর। বিদেশি এয়ারলাইন্সের মতো একই হারে খরচ না ধরতেও সিভিল এভিয়েশনের প্রতি আহবান তাদের।

অবশ্য সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ বলছে, এক্ষেত্রে ছাড় দেয়ার উপায় নেই। আন্তর্জাতিক মান যাচাই করেই বিমানবন্দর ব্যবহারের খরচ নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানান বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন সচিব।

বেসরকারি এয়ারলাইন্সগুলোর ব্যবসাকে এগিয়ে নেয়ার বিষয়ে তাদেরই ভাবতে হবে বলেও পর্যটন সচিব।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2017 AjKaal24.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com